1. selimnews18@gmail.com : একাত্তর এক্সপ্রেস :
  2. selim.bmail24@gmail.com : একাত্তর এক্সপ্রেস (টিম ২) : একাত্তর এক্সপ্রেস (টিম ২)
  3. asadzobayr@yahoo.com : Zobayr : আসাদ জোবায়ের
মানুষের ভালোবাসা পাওয়াই আমার জীবনের বড় অর্জন-সাক্ষাৎকারে যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন
শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১০:২৯ অপরাহ্ন

মানুষের ভালোবাসা পাওয়াই আমার জীবনের বড় অর্জন-সাক্ষাৎকারে যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ পৌরসভার ৮নং ওর্য়াড কাউন্সিলর ও জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আনোয়ার হেসেন সর্বজন স্বীকৃত একজন ভালো মনের মানুষ। দলমত নির্বিশেষে সকলের প্রিয় একজন সফল ব্যক্তিত্ব। সদা হাসোউজ্জল বিনয়ী,বন্ধুবৎসল আনোয়ার হোসেনের একটাই কথা মানুষের ভালোবাসা পাওয়া আমার জীবনের বড় অর্জন তাই আমি জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হয়ে আজীবন জনগণের পাশে থাকতে চাই।

এ প্রিতিনিধিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি তুলে ধরেন তার রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপট- তিনি বলেন,পারিবারিক রাজনৈতিক আদর্শ দেখে হাইস্কুল থেকে জড়িত হন ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে। ১৯৮৪ ইং থেকে কমলগঞ্জ বহুমুখী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত থাকেন, ১৯৮৭ সালে শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের কার্যকরি কমিটির সদস্য ছিলেন, ১৯৮৯ ইং সনে মৌলভীবাজার সরকারি কলেজে স্নাতক শ্রেণীতে ভর্তি হয়ে ছাত্রলীগের সকল মিটিং মিছিলে অংশগ্রহন করেন। ৯০ এর স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে  ততকালীন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহান আহমদ টোটুলের নেতৃত্ব ততকালীন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরীর অফিস ঘেরাও করার সময় পুলিশের লাটি চার্জ করে তখন আনোয়ার হেসেনসহ উনার ছোট ভাই সানোয়ার হোসেন আহত হন।

১৯৯১ ইং সনে কমলগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯১ ইং সনে বিএনপি ক্ষমতায় আসলে বিএনপি ও জামায়াত বিরোধী সহ ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ডাকে সকল আন্দোলনে স্বক্রীয়ভাবে দায়িত্ব পালন করে নেতৃত্ব দেন। ১৯৯৪ ইং সনে অনুষ্ঠিত কমলগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে ভোটের মাধ্যমে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।১৯৯৮ ইং সনে অনুষ্ঠিত উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে সভাপতি নির্বাচিত হয়ে ছাত্রলীগকে সুসংগঠিত করেন। ছাত্রলীগের দায়িত্ব সততা ও দক্ষতার সহিত সঠিক ভাবে পালন শেষে ২০০২ সালে উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সম্মেলনে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হন দীর্ঘদিন উপজেলা যুবলীগের নেতৃত্বের মাধ্যমে সুসংগঠিত করে বর্তমানে মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতি হিসেবে এই দায়িত্ব সঠিক, সততা এবং নিষ্ঠার সাথে পালন করে আসছেন।

জনপ্রতিনিধি :-১৯৯৯ ইং সনের ৭ই অক্টোবর কমলগঞ্জ শ্রীমঙ্গলের মাটি ও মানুষের নেতা সাবেক চিফ হুইপ আলহাজ্ব উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ এমপি কমলগঞ্জ পৌরসভা প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠার পর ১৯৯৯ ইং সনে সরকার কর্তৃক প্রশাসক নিয়োগ ও যে কমিটি গঠন করা হয় সেই কমিটির সদস্য হিসেবে নিয়োগ পান,পৌরসভার নাগরিকরদের উন্নয়নে সততার সহিত অর্পিত দায়িত্ব পালন করেন। ২০০২ সালে প্রথম পৌরসভা নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডের কমিশনার নির্বাচিত হন।২০১০ সালে অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে ৯ টি ওয়ার্ডের মধ্যে সর্বাধিক ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন এবং পৌরসভার প্যানেল মেয়র ১ হিসেবে বিভিন্ন সময়ে ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৫ সালেন নির্বাচনে ৩য় বাবের মত বিপুল ভোটে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব:-তিনি ১৯৯৬ ও ১৯৯৮ সনে কমলগঞ্জ বহুমূখী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিবাবক কমিটির নির্বাচনে পর পর দু’বার সর্বোচ্ছ ভোটে নির্বাচিত হন।২০১৩ ইং থেকে ২০১৫ ইং পর্যন্ত কমলগঞ্জ বহুমূখী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে মৌলভীবাজার জেলা শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক বিদ্যালয় হিসেবে স্বীকৃত প্রাপ্ত কুমড়াকাপন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ক্রীড়াঙ্গনে:-১৯৯৬ইং সনে প্রতিষ্ঠিত উদয়ন সংঘ (কুমড়াকাপন) এর সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৪ ইং থেকে কমলগঞ্জ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। ২০১১ ও ১৩ সালে সিলেট বিভাগের মধ্যে অনুষ্ঠিত চীফ হুইপ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের স্বেচ্ছাসেবক কমিটির আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি বর্তমানে কুমড়াকাপন দরগাহ্ জামে মসজিদের সাধারণ সম্পদকের দায়িত্ব পালন করছেন। উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ এমপি মহোদয়ের মনোনীত সদস্য হিসেবে ২০১০ইং হইতে ২২০১৬ ইং পর্যন্ত ইসলামিক ফাউন্ডেশন কমলগঞ্জ উপজেলায় সরকার কর্তৃক বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশগ্রহন করেন। এবং বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

কমলগঞ্জ উপজেলা থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদ পত্রিকার উপদেষ্টা হিসেবে এছাড়াও আসন্ন কমলগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে কমলগঞ্জের সুপরিচিত মুখ সকলের প্রিয় সৎ আদর্শবান রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও অসহায় মানুষের বন্ধু আনোয়ার হোসেন কে কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র হিসেবে দেখতে চান বলে কমলগঞ্জ পৌর এলাকার জনগণের মূখে মূখে শুনা যাচ্ছে এমন প্রশ্নের উওরে যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন বলেন সাধারন জনগণ ও দলীয় মনোনয়ন পেলে ইনশাআল্লা পৌর নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবো ও  কমলগঞ্জ পৌরসভাকে জনবান্ধব ও পৌর নাগরিকদের সুযোগ সুবিধাবৃদ্বিসহ যুবসমাজকে মাদ্রকের হাত থেকে রক্ষা করাসহ নাগরিকদের মতামত নিয়ে সকলের ভাষ যোগ্য আধুনিক পৌরসভা গঠনে কাজ করে যাবো।

  •  
    353
    Shares
  • 353
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরও খবর...

Comments are closed.