1. selimnews18@gmail.com : একাত্তর এক্সপ্রেস :
  2. selim.bmail24@gmail.com : একাত্তর এক্সপ্রেস (টিম ২) : একাত্তর এক্সপ্রেস (টিম ২)
  3. asadzobayr@yahoo.com : Zobayr : আসাদ জোবায়ের
ইতিহাস-ঐতিহ্যের তীর্থস্থান আমাদের কমলগঞ্জ: সায়েল আহমদ
বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৯:০৮ অপরাহ্ন

ইতিহাস-ঐতিহ্যের তীর্থস্থান আমাদের কমলগঞ্জ: সায়েল আহমদ

নিউজ ডেস্ক:
  • প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২০

নৈসর্গিক সৌন্দর্যের এক তীর্থভূমি আমাদের বাংলাদেশ। বাংলাদেশের সৌন্দর্যময় কয়েকটি স্থানের অন্যতম একটি স্থান হচ্ছে দক্ষিণ সিলেট তথা মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলা । চা শ্রমিক আর নৃ-জাতি গোষ্ঠীসহ মূলধারার জনগোষ্ঠীর শান্তিপূর্ণ সহবস্থান এই মাটিকে করেছে মাধুর্যময়। বৈচিত্রময় মানুষ ও প্রকৃতি এখানে একটি অপরটির পরিপূরক হয়ে দাঁড়িয়েছে।

মূলজনগোষ্ঠীর পাশাপাশি আমরা যারা ক্ষুদ্র নৃ জাতিগোষ্ঠী ও ভিন্ন ভিন্ন সংস্কৃতির সমান্তরাল অবস্থান ও লালন এই মাটির সৌন্দর্য তাকে করেছে আরো সুন্দর। যুদ্ধ সময়ে মনিপুরী রাজা ও রাজ ভ্রাতৃদ্বয়ের সৈন্য সামন্তসহ আশ্রয়, পাঠান সেনাপতি খাজা ওসমানের অভিযান, একসময়ের ভারত কাঁপানো রাজন্য বিরোধী ভানুবিলের প্রজা বিদ্রোহ এমনকি আমাদের সুমহান স্বাধীনতা যুদ্ধে সম্মুখসমরে বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমানের আত্মত্যাগ কমলগঞ্জের ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে শুধু সমৃদ্ধই করেনি করেছে মর্যাদাপূর্ণ।

চা বাগান, রাবার বাগান, আনারস, কাঠাল, লেবু, সুপরিসহ ধানী জমি, পান আর ইক্ষুর ক্ষেত আমাদের সৌন্দর্য্যাকতাকেও বাড়িয়ে দিয়েছে ।

দেশের সর্বমোট ১৬২টি চা বাগানের মধ্যে ২০ টিরই অবস্থান কমলগঞ্জে। কমলগঞ্জেই আছে দেশের সবচেয়ে বড় জলপ্রপাত হামহাম। মাগুর ছড়া গ্যাস ক্ষেত্রও ছিলো আমাদের। কিন্তু এক দূর্ঘটনায় এই গ্যাস লাইন বন্ধ হয়ে যায় অবস্থিত কমলগঞ্জ উপজেলায়, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন সময়ে নির্মিত শমসেরনগর বিমান বন্দর আমাদের সম্পদ আমাদের পরিচয়ের একটি অংশ। দৃষ্টিনন্দন শ্যামলী, দেশের দ্বিতীয় বন লাউয়াছড়া রিজার্ভ ফরেস্ট, মাধবপুর লেক,পদ্মছড়া লেক, শমশেরনগর বধ্যভূমি, হীড বাংলাদেশ, আরও অনেক আছে। এই সব টুরিস্ট আকর্ষণীয় স্থান আমাদের কমলগঞ্জেই।

বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমানের রক্ত আমাদের মাটির সাথেই মিশে আছে। বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হামিদুর রহমান স্মৃতি স্তম্ভ আমাদের গৌরব।

কমলগঞ্জের সুন্দর প্রকৃতি জন্ম দিয়েছে অসংখ্য সুন্দর মনের মানুষ। ব্রিটিশ শাসনামলে উপমহাদেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন শাস্ত্রের অধ্যাপক ও মৌলভীবাজার জেলার প্রথম পি এইচ ডি ডিগ্রিধারী ব্যক্তি ডক্টর শশীভূষণ মল্লিকের জন্ম আমাদের কমলগঞ্জের মুন্সিবাজারে । মৌলভীবাজার জেলার প্রথম এম বি বিএস ডাক্তার ও ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক প্রথম খানবাহাদুর উপাধি প্রাপ্ত মৌলভীবাজারী হচ্ছেন ডাক্তার বজলুল হাসান চোধুরী। তাঁর জন্মস্থানও আমাদের কমলগঞ্জ পৌরসভাধীন খুশালপুর গ্রামে।

১৯১৯ সালে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সিলেট ভ্রমণকালে মনিপুরী নৃত্যদেখে এতো বেশি বিমোহিত হন যে তিনি ১৯২০ সালে কমলগঞ্জের বালিগাঁও গ্রামের নৃত্যগুরু বাবু নীলেশ্বর মুখার্জিকে শান্তিনিকেতনের অধ্যাপক ও প্রশিক্ষক হিসাবে নিয়োগ দান করেন।

কমলগঞ্জের মুখ উজ্জ্বলকারী প্রায়াত বিশিষ্টজনদের মধ্যে আছেন ভাষা সৈনিক সাবেক এম এল এ সাবেক সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য মরহুম মোহম্মদ ইলিয়াছ এমপি, লোক গবেষক আশরাফ হোসেন, সাহিত্যরত্ন চৌধুরী গোলাম আকবর সাহিত্য ভূষণ, গবেষক হারুন আকবর, কবি নওয়াব জাহান খসরু আহমেদ চৌধুরী, সাংবাদিক ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক সৈয়দ মতিউর রহমান, ভাষা সংগ্রামী ও রাজনীতিবীদ প্রয়াত মফিজ আলী, সাহিত্যে বাংলা একাডেমির বিশেষ পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক ও সাংবাদিক প্রায়াত ইসহাক কাজল, কবি আবু কায়সার খান, কবি সাইয়িদ ফকরুল ও আন্তর্জাতিক ভাবে পরিচিত দেশের সুনামধন্য হকি খেলোয়াড় জুম্মন লুসাই ।

আমাদের মধ্যে জীবন্ত কিংবদন্তি হয়ে আমাদের মধ্যেই আছেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুল আহাদ চৌধুরী, গবেষক ও সমাজ চিন্তক আহমেদ সিরাজ, অধ্যক্ষ রসময় মোহান্ত, কণ্ঠশিল্পী সেলিম চৌধুরী, সাংবাদিক সত্যব্রত দেবরায় শঙ্কর, কবি শহীদ সাগ্নিক,সাংবাদিক ও কবি মীর লিয়াকত আলী ও ফুটবলার সালাউদ্দিন প্রমুখ।

আশির দশকে প্রশাসনিক বিকেন্দ্রীকরণের মাধ্যমে কমলগঞ্জ থানা উপজেলায় উন্নীত হয়। কমলগঞ্জের দানবীর গণ- হলেন এম এল এ মরহুম মৌলভী কেরামত আলী, মরহুম মুহিবুর রহমান চাষী, মরহুম মকবুল আলী, অধ্যক্ষ ফখর উদ্দিন চৌধুরী, হাজী মুজিবুর রহমান চৌধুরী, হাজী উস্তার উদ্দিন ।

এই উপজেলার অবকাঠামোগত উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন সেই সময়ের স্বরাষ্ট্র সচিব সৈয়দ আহমদ মাহমুদ। সৈয়দ আহমদ মাহমুদের জন্ম কমলগঞ্জের রামপাশা গ্রামে।

নব্বইয়ের শেষদিক থেকে বর্তমানের এই সময় পর্যন্ত যাদের অবদান ও কষ্টে আমাদের আজকের এই কমলগঞ্জ তাদের মধ্যে অন্যতম বাংলাদেশের সদ্য বিদায়ী প্রধান বিচারপতি বাবু সুরেন্দ্র কুমার সিংহ, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাবেক সদস্য ও কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অধ্যাপক রফিকুর রহমান, সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব আব্দুস শহীদ এমপি, বাংলাদেশ পুলিশের মহাপুলিশ পরিদর্শক (প্রিজন ) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডাক্তার সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন, র্যার-১ উত্তরা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কামাল উদ্দিন এর অনস্বীকার্য।

কমলগঞ্জের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অন্যতম কলেজ কমলগঞ্জ সরকারি গণ মহাবিদ্যালয় কলেজ, বি এ এফ শাহিন কলেজ, আব্দুল গফুর মহিলা কলেজ, সুজা মেমোরিয়াল কলেজ, হুরুনেছা খাতুন চৌধুরী কলেজ, সফাত আলী সিনিয়র ফাজিল মাদ্রারাসা। এছাড়াও শত শত মাধ্যমিক উচ্চ বিদ্যালয় ও প্রথমিক বিদ্যালয় আছে আমাদের উপজেলায়।

কমলগঞ্জ পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড ফাজিলপুর গ্রামে আমার জন্মস্থান। আমার রক্ত-মাংসের সাথে কমলগঞ্জের মাটি মিশে আছে। আমরা প্রত্যেকটি কমলগঞ্জী নিজেদের কমলগঞ্জী হিসাবে ভাবতে ভালোবাসি ও পরিচয় দিতে গর্ববোধ করি।

কমলগঞ্জের প্রকৃতি ও ইতিহাস আমাদের অভিন্ন। রহিমপুর থেকে কুরমা আর লাউয়াছড়া থেকে ডবল ছড়া আমাদেরই এলাকা। আমরা আমাদের এই সুবিশাল এলাকার উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার জন্য সকলেই সাধ্য অনুযায়ী কাজ করি। কমলগঞ্জ মূলত কৃষি নির্ভর খাদ্য উদ্ধৃত এলাকা হিসাবে পরিচিত। কমলগঞ্জের মাটি, মানুষ ও প্রকৃতি নিয়ে আমি/আমরা গর্ব করি।

এ বিভাগের আরও খবর...

Comments are closed.